রবিবার, ১৪ Jul ২০২৪, ০১:০৮ পূর্বাহ্ন

হাইওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগে মানববন্ধন

হাইওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগে মানববন্ধন

পাবনার সাঁথিয়া হাইওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যাপক চাঁদাবাজীর অভিযোগে সার্জেন্ট আমিনুর ইসলামকে প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করেছে সাঁথিয়া-বেড়া থ্রি হুইলার (সিএনজি) মালিক ও শ্রমিক সমিতি। বুধবাবার সকাল ১১টায় সাঁথিয়া সিএন্ডবি বাসস্ট্যান্ড সড়কে এ মানববন্ধন করেন তারা।

অভিযোগে জানা গেছে সাঁথিয়া মাধপুর হাইওয়ে সার্জেন্ট আমিনুল ইসলাম যোগদানের পর থেকে মহাসড়কে ব্যাপক চাঁদাবাজী শুরু করে। এতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ে সিএনজি চালকেরা। অপরদিকে হাতিগাঁড়া গ্রামের মুকুল নামে এক সিএনজি চালকের গাড়ী আটকের পর চাঁদার পরিমান শুনে স্ট্রোক করে মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। চাঁদাবাজীর প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে নগরবাড়ী-বগুড়া মহাসড়কের সিএন্ডবি বাসস্ট্যান্ডে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে সিএনজি চালক মাািলক সমিতি। এ খবর শুনে সাঁথিয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ আসাদুজ্জামান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেড়া সার্কেল) জিল্লুর রহমান এবং অভিযুক্ত সার্জেন্ট আমিনুল ইসলাম সমাবেশে উপস্থিত হন।

তাদের আশ^াসে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ শেষ করেন তারা। সিএনজি চালক সেলিম জানান, আমার সিএনজি ধরে নিয়ে ১মাস ২ মাস আটকিয়ে রাখার ভয় দেখিয়ে ৬হাজার টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয়। হাফিজ জানায়, গ্যাস তুলতে হাইওয়ে সড়কে উঠলেই আমার গাড়ী আটকিয়ে ২ হাজার টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয় আমিনুল। এদের মত অনেকেই জানান, সার্জেন্ট আমিনুলের চাঁদাবাজীর অতিষ্টে আমরা গাড়ী সড়কে চালাতে পারছি না। সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন বেড়া ও সাঁথিয়া সিএনজি মালিকÑচালক সমিতির সভাপতি মিন্টু ও স্বপন প্রমূখ। এ সময় বক্তারা সার্জেন্ট আমিনুলের অবিলম্বে প্রত্যাহার দাবী করেন।

এর আগে গত সোমবার হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট আমিনুল ইসলাম আমাইকোলা নামক স্থানে গ্যাস তুলতে যাওয়া একটি সিএনজিকে আটক করে চাঁদাবাজী করার চেষ্টা করে। এ সময় বাস্ট্যান্ড থেকে নেতা কর্মীরা এসে হাইওয়ে পুলিশকে ঘিরে ধরে ও নগড়বাড়ী-বগুড়া মহাসড়কে অবরোধ করে রাখে। দীর্ঘ ২ ঘন্টা পরে সাঁথিয়া ও বেড়া থানা পুলিশের সহায়াতায় বিচারের আশ^াসে অবরোধ তুলে নেয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট আমিনুল ইসলাকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি চাঁদাবাজীর কথা অস্বীকার করেন।
এ বিষয়ে ট্রাফিক পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ বলেন, চাঁদাবাজীর সু-নিদৃষ্ট অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

টিনিউজ/এফএইস

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions