মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
নরসিংদীতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত উল্লাপাড়ায় মাইক্রোবাস-অটোভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে অটোভ্যান চালক নি’হ’ত। নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘ’র্ষ, আহত ৪ ঘুমধুমে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৪ সেন্টমা‌র্টিন দ্বীপ নি‌য়ে বাকযুদ্ধ – মেজর না‌সিরু‌দ্দিন(অব) পিএইচ‌ডি রা‌সেল ভাইপার সা‌পের কাম‌ড়ে আক্রান্ত কৃষক এখ‌নো সুস্থ  রাসেলস ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের এক ছাগল কিনেই বেরিয়ে এলো মতিউর-লাকী দম্পতির থলের বেড়াল ভারতকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া টাইগাররা
সিরাজগঞ্জ কারাগারে ধারণ ক্ষমতার চেয়েও ৫গুণ বেশী বন্দি।

সিরাজগঞ্জ কারাগারে ধারণ ক্ষমতার চেয়েও ৫গুণ বেশী বন্দি।

 

মোঃ লুৎফর রহমান লিটন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে ৩৫২ জনের ধারণ ক্ষমতা থাকলেও ১ হাজার ৭৫৬ জন বন্দি রয়েছে এ কারাগারে। বিরোধী দলের আন্দোলন-সংগ্রাম ও অবরোধকে ঘিরে প্রতিদিন বেড়েই চলছে বন্দির সংখ্যা। এতে বন্দিদের সমস্যাটা প্রকট হয়ে দাড়িয়েছে। কিন্তু সমস্যা প্রকট হলেও বন্দিদের কারাগারে থাকতে খুব বেশি সমস্যা হচ্ছে না বলে দাবি করছেন কারা কর্তৃপক্ষ। জেলা কারাগার সূত্রে জানা যায়,মহকুমা থাকাকালিন ১৯১৮ সালে সিরাজগঞ্জের যমুনা নদীর তীরে উপ-কারাগার প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠিত সেই উপকারাগারটি ১৯৮৪ সালে সিরাজগঞ্জ জেলা ঘোষণার পর ১৯৯৪ সালে জেলা কারাগারে রুপান্তরিত হয়। পরে শহরের কান্দাপাড়া এলাকায় ৬.৫০ একর জমির উপর ১৯৯৪ সালের (১৭নভেম্বর) এই কারাগারটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ৬.৫০ একর জায়গা নিয়ে কারাগারের অবস্থান। তবে যার মুল কারাগার ৪ একর। এই জেলা কারাগারে বন্দিদের জন্য মোট ৭টি ভবন রয়েছে। এরমধ্যে দুটি তিন তলা ভবন, একটি দুইতলা ভবন ও একটি একতলা ভবন রয়েছে চারটি,যে ভবনগুলোতে বন্দিরা রয়েছেন। রাখিব নিরাপদ,দেখাব আলোর পথ এই ভিশনে জেলা কারাগারে ৩৩২ জন পুরুষ, ২০ জন নারী বন্দি (হাজতি ও কয়েদি) মিলে মোট ৩৫২ জনের ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন থাকলেও ১ হাজার ৭৫৬ জন আসামি বন্দি আছে। এরমধ্যে নারী বন্দি আছেন ৬২ এবং ১ হাজার ৭৫৬ বন্দির ভেতরে সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি আছেন ৩৫৪ জন। নারী কয়েদি আছেন ৯ জন। মোট বন্দির মধ্যে ৫৩ জন নারীসহ হাজতি আছেন মোট ১ হাজার ৪০২ জন। এই বন্দিরা বিভিন্ন মামলায় কারাগারে রয়েছেন। বর্তমানে যা হিসেব করলে দেখা যায় ধারণ ক্ষমতা ৩৫২ জনের চেয়ে বন্দি আছেন ১৭৫৬ জন। এতে সংখ্যা প্রায় পাঁচগুণ (৪.৯৮৮) বেশি। কয়েকজন কারা সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়,বন্দিদের জন্য নির্ধারিত ওয়ার্ডগুলোতে বর্তমানে ধারণক্ষমতার কয়েকগুণ বেশি বন্দি আছেন। দিনের বেলায় বন্দিরা ওয়ার্ডের বাইরে ঘোরাফেরা করলেও বিকাল থেকে তাদের ওয়ার্ডে প্রবেশ করতে হয়। অধিক বন্দি থাকায় ওয়ার্ডে শোবার পরিবেশ নেই। গাদাগাদি করে জীবনযাপন করছেন বন্দিরা। শীত মৌসুমে তেমন সমস্যা না হলেও গরমে এই সংকট আরও তীব্র হয়ে ওঠে। সিরাজগঞ্জ কারাগারের জেলার মোহাম্মদ ইউনুস জামান বলেন,বর্তমানে এই কারাগারের ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি বন্দি আছেন। তারা সবাই ওয়ারেন্টের প্রেক্ষিতে বা কোনো না কোনো মামলায় গ্রেপ্তার হয়

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions