শুক্রবার, ১৪ Jun ২০২৪, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
বৃক্ষরোপণে প্রধানমন্ত্রীর নিকট হতে সম্মাননা পুরস্কার পেলেন একদুয়ারিয়া স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদির মৃধা নরসিংদী মডেল কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠিত আজ শুক্রবার থেকে হজ্বের আনুষ্ঠানিকতা শুরু  যুক্তরাজ্যে জেনারেটিভ এআই ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৮০ ভাগ কিশোর  টেকনাফে ১ যুবককে কুপিয়ে হত্যা  রো‌হিঙ্গ‌া ভোটা‌র জান‌তে চায় হাইকোর্ট চার সব‌জি‌তে মি‌লে‌ছে ক‌্যান্সার প্রতি‌রোধক উপাদান  নরসিংদীতে নসিমন ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে নারীর মৃত্যু আইএফআইসি ব্যাংকের সিন্দুক ভেঙ্গে ৩০ লাখ টাকা লুট নরসিংদীতে অটিজম আক্রান্ত শিশুদের জেলা প্রশাসকের জন্মদিন পালন
সিরাজগঞ্জে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ হলেও হয়নি সংযোগ সংযোগ সড়ক।

সিরাজগঞ্জে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ হলেও হয়নি সংযোগ সংযোগ সড়ক।

 

মোঃ লুৎফর রহমান লিটন সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।

সিরাজগঞ্জে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতু নির্মাণ হলেও হয়নি সংযোগ সংযোগ সড়ক
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌরসভার বাড়ইয়া খেয়াঘাট এলাকায় একটি সেতু উদ্বোধন করা হয় ২০১৯ সালে। সেতুর নির্মাণকাজের দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও হয়নি দু’পাশের চলাচলের সংযোগ সড়ক। ফলে সেতুটি এখন এলাকাবাসীর কাছে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সেতু নির্মাণের পর থেকেই এ সেতুতে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মই বেয়ে চলাচল করে। ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কংক্রিটের সেতুর দুই পাশে সংযোগ সড়ক না থাকায় সেটি ব্যবহারে বিড়ম্বনা পোহাতে হচ্ছে স্থানীয়দের। ফলে ঝুঁকি নিয়ে মই দিয়ে উল্লাপাড়া-কালিগঞ্জ সড়কের এই সেতু দিয়ে প্রতিদিন ভোগান্তিতে চলতে হয় এলাকাবাসীর। শিগগিরই সংযোগ সড়ক নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সূত্রে জানা গেছে,৯৬ ফুট দৈর্ঘ্যের এই সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এতে ব্যয় হয় প্রায় ৭ কোটি টাকা। তবে সেতুটির দুপাশের সংযোগ সড়ক নির্মাণে এখনো ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হয়নি। ফলে এলজিইডি বিভাগ সেতুটির দু’পাশে সংযোগ সড়ক নির্মাণ করতে পারছে না।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান,দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সেতুটির নির্মাণকাজ শেষ হলেও সংযোগ সড়ক হয়নি।

ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন না হওয়ায় ঠিকাদার সেতুটির দুই পাশের সংযোগ সড়ক এখনো নির্মাণ সম্পন্ন করতে পারেননি। ফলে প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেতুর দু’পাশের মই বেয়ে সেতুতে উঠে পার হতে হচ্ছে। তারা দ্রুতই জমি অধিগ্রহণের জটিলতা দূর করে সেতুর দু’পাশের সংযোগ সড়ক নির্মাণের দাবি জানান।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন,নিয়ম অনুযায়ী সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসনের ভূমি অধিগ্রহণ শাখা থেকে জরিপ করা হয়। এরপর ওই জমির মূল্য নির্ধারণ করে অনুমোদন দেওয়া হলে সেতুর সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু জমির মূল্য নির্ধারণ প্রক্রিয়া শেষ না হওয়ায় এই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে উল্লাপাড়া উপজেলা প্রকৌশলী মো.আবু সায়েদ বলেন, বাড়ইয়া গ্রামের সেতু নির্মাণ প্রকল্পের প্রায় ৮০ ভাগ কাজ শেষ হয়ে গেছে। এখন সংযোগ সড়কের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের লক্ষ্যে যথাসময়ে সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসকের ভূমি অধিগ্রহণ শাখায় আবেদন করা হয়েছে

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions