সরই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রত্যাশী মোঃ খানে আলম (ইরফান)

Date:

 

(বিশেষ প্রতিনিধি)

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সরই ইউনিয়ন শাখার কমিটি বিলুপ্ত হওয়ার পরথেকে পদে প্রত্যাশী নেতাকর্মীরা নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণে ব্যস্ত সময় পার করছে। সামাজিক নানা কর্মকান্ডে পদচারণা বেড়েছে পদ-প্রত্যাশীদের। চালিয়ে যাচ্ছে বহুমূখী প্রচার-প্রচারণা। আগামী ১৮ মার্চ সরই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সম্মেলন ঘিরে কারা আসবে নেতৃত্বে এই নিয়ে জল্পনা-কল্পনায় দিন কাটাচ্ছে নেতাকর্মীরা।অনেকে প্রার্থীতার বিষয়ে নেতাকর্মীদের ইঙ্গিত দিচ্ছেন।

ইতিমধ্যে সরই ইউনিয়নের অনেক নেতাকর্মীদের মুখে মুখে শুধু একজনের নামেই শুনা যাচ্ছে। তিনি আর কেউ নন, সকলের পরিচিত প্রিয়মুখ এবং সরই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রত্যাশী মোঃ খানে আলম (ইরফান)’র। তিনি বাকলিয়া শহিদ এন এম এম জে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে সদ্য এইচএসসি পাশ করে বান্দরবান সরকারি কলেজে অনার্সে এডমিশনের অপেক্ষায় রয়েছে। তিনি আগামী ১৮ মার্চ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সম্মেলন সামনে রেখে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালনের সুযোগ দেয়ার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ঘুরে জানা যায়, ছাত্রনেতা মোঃ খানে আলম ইরফান দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রলীগের মতো বৃহত্তম সংগঠনের স্কুল, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন শাখায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। বর্তমানে কর্মী ও অনুসারীদের দাবীর মুখে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থীতার ঘোষণা দিয়েছে। ছাত্রনেতা খানে আলম ইরফান হচ্ছে সরই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা বদন মিয়ার সুযোগ্য ছেলে। সে স্কুল জীবন থেকে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন, বাঙ্গালীর ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক-বাহক, দক্ষিণ এশিয়ার সর্ব বৃহৎ ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত।
এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও মানবিক কাজের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। তিনি দলীয় সাংগঠনিক দায়িত্বের পাশাপাশি সামাজিক কাজেও অতুলনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে।

ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যান্ত নম্র, ভদ্র, সদা হাস্যোজ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তার মাঝে কোন প্রকার অহংকার নেই। নিরঅহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে একজন প্রিয় ব্যাক্তি। তিনি সবসময় কাজ করে যাচ্ছে দলের জন্য এবং খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের কল্যানের জন্য। তিনি ইউনিয়ন বাসীর কাছে একজন সাদা মনের উধার মানসিকতার মানুষ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।
তিনি সর্বদা হাস্যোজ্জ্বল, ব্যক্তিত্বে অমায়িক,কথাবার্তায় বিনয়ী, চলাফেরায় নম্র ও দরাজ কণ্ঠের অধিকারী একজন সফল মেধাবী ছাত্রনেতা এবং সফল দক্ষ সংগঠক। ছাত্রনেতা খানে আলম ইরফান ইউনিয়ন ছাত্রলীগকে আরো সুসংগঠিত করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পার্বত্য মন্ত্রী বাবু বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি মহোদয়ের হাতকে আরো শক্তিশালী করতে ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

সরই ইউনিয়ন একাধিক দলীয় নেতাকর্মীরা বলেন,
বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের বাহিরে কোন নেতৃত্ব দেখতে চাই না। বিবাহিত, অছাত্র এবং যাদের বয়স নেই তাদেরকে নেতৃত্বে দায়িত্ব দেওয়া হলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হবে। আর ছাত্রনেতা খানে আলম ইরফান একজন ক্লিন ইমেজের ও ছাত্রলীগের নিবেদিত কর্মী। তাকে সরই ইউনিয়ন শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিলে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা আরও বেশি উজ্জীবিত হবে। তাই সাধারণ সম্পাদক পদে মেধাবী ও পরিশ্রমী ছাত্রনেতা মোঃ খানে আলম ইরফানকে কে দেখতে চাই।

এ ব্যাপারে ছাত্রনেতা খানে আলম ইরফান বলেন,
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ করে, তার সুযোগ্য কন্যা গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন সাধারণ কর্মী হয়ে ও পার্বত্য মন্ত্রী বাবু বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি মহোদয়ের নির্দেশে এবং জেলা, উপজেলার সিনিয়র নেতাকর্মীদের পরামর্শে দীর্ঘদিন ধরে দলীয় কাজ করে যাচ্ছি। আমি একজন আওয়ামী পরিবারের সন্তান। আমার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে বিশ্বাসী এবং তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থাশীল ব্যক্তি। তার জীবনের শেষ পর্যায়ে এসেও এখনো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার গুনগান শুনতে পাই। এটাই আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া।

তিনি আরও বলেন, আগামী ১৮ মার্চ সরই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সম্মেলনে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দল যদি আমাকে যোগ্যতা মনে করে এবং দক্ষিণ এশিয়ার ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সরই ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ করে তাহলে বিগত দিনের মতই দলের হয়ে একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে কাজ করে যাবো। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে নিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের যথাযথ মূল্যায়ন করবো।পাশাপাশি আগামী নির্বাচনে এই অঞ্চল থেকে নৌকার মাঝিকে বিজয় করতে সকল ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে কাজ করবো। জেলা, উপজেলার সিনিয়র নেতা কর্মীদের পরামর্শে সংগঠনকে আরও গতিশীল ও শক্তিশালী করতে তার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

ছাত্রনেতা মোঃ খানে আলম ইরফান ইউনিয়নবাসি তথা সকলের কাছে দোয়া/আশির্বাদ ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

spot_imgspot_img

Popular

More like this
Related

বিজয়ের হাসি হাসলেন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী

উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জাহাঙ্গীর...

ভোট কেনার সময় জনতার হাতে আটক ৩ চেয়ারম্যান কর্মী

ডেস্ক নিউজ: ভোটের আগের রাতে ভোট কেনার জন্য মরিয়া হয়ে...

নরসিংদীতে আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীতে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর সুমন হত্যাকাণ্ডের রেশ কাটতে...

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী খোরশেদ আলম চৌধুরীর সমর্থনে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত মোঃ কুতুব উদ্দিন

  বিশেষ প্রতিনিধি আসন্ন লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী খোরশেদ...