শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন

শেষের দিকে এসে জমে ওঠেছে ইসলামি বইমেলা

শেষের দিকে এসে জমে ওঠেছে ইসলামি বইমেলা

শেষের দিকে এসে জমজমাট হয়ে ওঠেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত মাসব্যাপী ইসলামি বইমেলা। প্রতিটি স্টলে দেখা গেছে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়। গত শুক্রবার সবচেয়ে বেশি পাঠকসমাগম ঘটেছে মেলায়। সবচেয়ে বেশি ভিড় চোখে পড়েছে রুহামা পাবলিকেশন্স, গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স, সমকালীন প্রকাশন, সমর্পণ প্রকাশন, মাকতাবাতুল বায়ান ও মাকতাবাতুল হাসানের স্টলে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের স্টলেও ভিড় ছিল কিছুটা। কিন্তু অনেক গুরুত্বপূর্ণ বই ছাপা না থাকায় ক্রেতা টানতে পারছে না স্টলটি।

মেলা উপলক্ষ্যে প্রকাশনীগুলো বাজারে এনেছে বেশ কিছু মৌলিক ও অনূদিত বই। সদ্য প্রকাশিত বইগুলোর মধ্যে পাঠকপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে রুহামা পাবলিকেশন্স প্রকাশিত আরবের প্রখ্যাত শাইখ সালিহ আল-মুনাজ্জিদ রচিত অনন্য সিরাতগ্রন্থ ‘যেমন ছিলেন তিনি’ ও মুফতি তারেকুজ্জান রচিত ‘ইসলামি জীবনব্যবস্থা’, মাকতাবাতুল বায়ান প্রকাশিত ‘বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া’ বইগুলো।

প্রায় প্রতিদিনই মেলায় আসছেন ইসলামি অঙ্গনের সুপরিচিত লেখক, অনুবাদক, সম্পাদক ও আলেম-ওলামাগণ। তাদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠছে মেলার পরিবেশ। বিকেলবেলায় বাইতুল মুকাররম চত্ত্বরে বসছে লেখক-পাঠক মিলনমেলা। হচ্ছে বিভিন্ন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান।

শেষের দিকে এসে জমে ওঠেছে ইসলামি বইমেলা

‘ক্যারিয়ার বাংলাদেশ’ নামের একটি সংগঠন মেলা উপলক্ষ্যে আয়োজন করেছে কুইজ প্রতিযোগিতার। পুরস্কার হিসেবে বিজয়ীদের হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে বই।

এছাড়াও কলরবসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো আয়োজন করছে মনমুগ্ধকর হালাল বিনোদনের। সেখানেও উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর ইসলামি বইমেলা ব্যাপক সাড়া ফেলেছে সাধারণ পাঠকদের মাঝে। আর একুশে বইমেলায় নানান কারণে ইসলামি প্রকাশনীগুলো স্টল বরাদ্দ না পাওয়ায় ক্রমেই ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত এই মেলাটি বাঙালি পড়ুয়া মুসলিদের কাছে ভরসার জায়গা হয়ে ওঠছে।

তবে প্রকাশনী মালিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে নানান প্রতিকূলতার কথা। জায়গার সংকুলান না হওয়া, প্রশাসনিক নিরাপত্তার তেমন কোনো ব্যবস্থা না থাকা, রুচিশীল ইসলামি প্রকাশনীগুলো স্টল না পাওয়া, স্টল বরাদ্দের কোনো সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকা, প্রকাশনীর নামে স্টল নিয়ে পরে ফুটপাতের কাপড় ব্যবসায়ীদের কাছে বিক্রি করে দেয়াসহ আরও নানান অভিযোগ প্রকাশনী সংশ্লিষ্টদের। তাদের দাবি, ধর্মমন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন এই দিকগুলোতে নজর দিলে ইসলামি বইমেলা হয়ে ওঠতে পারে সরকারের সফলতার আরেকটি মাইলফলক।

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions