শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
সেন্টমা‌র্টিন দ্বীপ নি‌য়ে বাকযুদ্ধ – মেজর না‌সিরু‌দ্দিন(অব) পিএইচ‌ডি রা‌সেল ভাইপার সা‌পের কাম‌ড়ে আক্রান্ত কৃষক এখ‌নো সুস্থ  রাসেলস ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের এক ছাগল কিনেই বেরিয়ে এলো মতিউর-লাকী দম্পতির থলের বেড়াল ভারতকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া টাইগাররা প্রধানমন্ত্রী দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লী পৌঁছেছেন মোটরবাইক ও ইজিবাইকের কার‌ণে সা‌দে‌শে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়‌ছে- সেতুমন্ত্রী ওবাইদুল কা‌দের  ওমা‌নে খুল‌ছে বাংলা‌দে‌শের তৃতীয় বৃহত্তম শ্রমবাজার এলাকাজুড়ে আতঙ্ক, মানিকগঞ্জে লোকালয়ে ঢুকেছে রাসেল ভাইপার উত্তর পুর্বাঞ্চলীয় রা‌জ্যের স‌ঙ্গে অন‌্যান‌্য রাজ‌্যগু‌লোকে সংযুক্ত কর‌তে বাংলা‌দে‌শের উপর‌দি‌য়ে বিকল্প রেলপথ তৈ‌রি কর‌তে যা‌চ্ছে ভারত সরকার 
ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাংচুর

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার ভাংচুর

সীমান্তবাংলা নিউজ ডেস্কঃ  ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় রোববার (৩ জানুয়ারি) মধ্যরাতে অজ্ঞাতরা একটি শহীদ মিনার ভাংচুর করে। ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা প্রাথমিক কর্মকর্তা এবং পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তারা বিদ্যালয়ে পরিদর্শন করেছেন।

বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১০ নম্বর খেরুয়াজানী ইউনিয়নের যাত্রাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারটি রোববার রাতে ভাংচুর করা হয়েছে। ভোর সকালে মানুষজন শহীদ মিনার ভাঙা অবস্থায় দেখতে পেয়ে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে খবর দেয়। পরে প্রশাসনিকভাবে অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তারা এসে বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করে।

যাত্রাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জল হোসেন আকন্দ বলেন, গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি এই শহীদ মিনারটি ভাংচুর করা হয়। গতকালও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটেছে। সেদিন রাতেও ১১টা পর্যন্ত চৌকিদার পাহারায় ছিল। ভোরে মুসল্লিরা নামাজ পড়তে গিয়ে দেখতে পায় শহীদ মিনারটি ভাঙা।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান, এটা একটা উস্কানিমূলক ঘটনা। এ ঘটনায় তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এজন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠনের কাজ চলছে।

মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার বিশ্বাস জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল-মুনসুর বলেন, সন্দেহভাজনদের একটি তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। দ্রুত শহীদ মিনারটি মেরামতের জন্য কাজ শুরু করা হবে এবং সকল স্কুলের শহীদ মিনার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

(সীমান্তবাংলা/ শা ম/ ৪ জানুয়ারী ২০২১)

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions