বিএনপি নেতা কর্মীদের সতর্ক করে দিলেন ওবায়দুল কাদের।

SIMANTO SIMANTO

BANGLA

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৬, ২০২২

 

সীমান্তবাংলা ডেস্ক নিউজ
বিএনপি নেতাকর্মীদের সতর্ক করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘প্রস্তুত হয়ে যান। আগামীকাল থেকে সব পাড়া-মহল্লা, ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলায় সব জায়গায় সতর্ক পাহারা বসবে।’

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রলীগের ৩০তম সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘খেলা হবে, ডিসেম্বরে খেলা হবে, নির্বাচনে খেলা হবে। আন্দোলনের বিরুদ্ধে খেলা হবে। ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে। বিজয়ের মাস প্রস্তুত হয়ে যান। ১৩ বছরে ১৩ মিনিটও দাঁড়াতে পারে না। তারা নাকি সরকার পতন করবে। বিএনপি ডাকে মহাসমাবেশ, বাস্তবে হয় সমাবেশ। আওয়ামী লীগ ডাকে সমাবেশ, বাস্তবে হয় মহাসমাবেশ।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ছাত্রলীগের আমাদের সবুজ কৈশোরের ভালোবাসা। ছাত্রলীগ আমাদের প্রথম প্রেম। শেখ হাসিনার নতুন অঙ্গীকার স্মার্ট বাংলাদেশ। রাজনীতিবিদরা ভাবেন পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে আর শেখ হাসিনা পরবর্তী প্রজন্ম নিয়ে ভাবেন।’

বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার প্রসঙ্গ তুলে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘জবাব দিতে হবে। এই খুনিদের কারা পুরস্কৃত করলো, এই খুনিদের কারা নিরাপদে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিলো, বিদেশি দূতাবাসে চাকরি দিলো। কে? জিয়াউর রহমান। এই খুনিদের বিচার হবে না, এই মর্মে আইন করলো। কে? সেনাপতি জিয়াউর রহমান।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সফল-জনপ্রিয় নেতা, সফল কূটনীতিক উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এই দুঃসময়ে যার ঘুম হয় না। জিজ্ঞেস করেছিলাম, কতক্ষণ ঘুমান। তিনি বললেন, ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা। বয়স হয়েছে। মাত্র ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা ঘুমান।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষকে টিকা দিয়েছেন বিনা পয়সায়, সংকট সামলেছেন। বাংলাদেশ আবারও ঘুরে দাঁড়াবে শত্রুর মুখে ছাই দিয়ে। উন্নত বিশ্বে মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশ। আজকে বাংলাদেশে মূল্যস্ফীতি ৯ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে নেমে সর্বশেষ ৮ দশমিক ৮৫ শতাংশ। রপ্তানি আয় বেড়ে যাচ্ছে। যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া সারা বিশ্বে প্রভাব ফেলেছে। আমি মনে করি, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সঠিক পথে আছেন, সব সামলিয়ে যাচ্ছেন।’