বাংলাদেশি ২২ জেলেকে ছেড়ে দিয়েছে মিয়ানমার নৌবাহিনী

SIMANTO SIMANTO

BANGLA

প্রকাশিত: নভেম্বর ২১, ২০২১

 ডেস্ক নিউজঃ

রোববার (২১ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমেদ। তিনি বলেন, সেন্টমার্টিনের বাসিন্দা নুরুল আমিন, মো. আজিম, মো. হোসেন এবং তার ছেলে মো. ইউনুছের মালিকাধীন ৪টি ট্রলারে ২২ জন মাঝিমাল্লা সাগরে মাছ শিকার করছিল। শনিবার সকালে দ্বীপের পূর্বদিকে মিয়ানমার নৌবাহিনীর সদস্যরা এসে ট্রলারসহ ২২ মাঝিমাল্লাকে ধরে নিয়ে যান। পরে শনিবার রাতে তাদেরকে ছেড়ে দেয় মিয়ানমার।

ফিরে আসা মাঝিমাল্লাদের বরাত দিয়ে চেয়ারম্যান নুর আহমেদ বলেন, মাঝিমাল্লাদের ছেড়ে দেয়ার মিয়ানমার নৌবাহিনী তাদের বলেছে, যাতে ভবিষ্যতে সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করে সাগরে মাছ শিকার যাতে না করে। সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে প্রবেশ করায় তাদেরকে ধরে নিয়ে যায় বলে জানায় মিয়ানমার নৌবাহিনী। তবে কাউকেও মারধর করা হয়নি। মাঝিমাল্লারা বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশের অভ্যন্তরে মাছ শিকার করছিল বলেও জানায় চেয়ারম্যান নুর আহমেদ।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী বলেন, মাঝিমাল্লাসহ ধরে নিয়ে যাওয়া ট্রলারগুলোসহ জেলেরা সেন্টমার্টিনে ফিরেছে সেটি নিশ্চিত হয়েছি। স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি জানিয়েছে এবং মাঝিমাল্লারা সবাই সুস্থ আছে।

এদিকে কোস্টগার্ড জানিয়েছে, সেন্টমার্টিনের অদূর থেকে ধরে নিয়ে যাওয়া ৪টি মাছ ধরার ট্রলারসহ বাংলাদেশি ২২ জন জেলেকে ছেড়ে দিয়েছে মিয়ানমার। তারা বর্তমানে দ্বীপে স্ব-স্ব পরিবারের সঙ্গে রয়েছেন।

সীমান্তবাংলা/রম/২১ নভেম্বর ২০২১