শুক্র. ফেব্রু. ২৮, ২০২০

পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে ধাক্কাধাক্কি, মিস ফায়ারে’ গুলিবিদ্ধ ২

সিলেটে খোলাবাজারে সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ট্রাক থেকে ন্যায্যমূল্যের পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে ধাক্কাধাক্কির সময় পুলিশের মিস ফায়ারে এক নারীসহ দুইজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

সোমবার দুপুরে নগরীর রিকাবীবাজার কবি নজরুল মিলনায়তনের সামনে এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) রিতা আক্তার।

আহতদের মধ্যে পথচারী চন্দ্রকান্ত সিংহকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার বাম হাতে গুলি লেগেছে। এছাড়া আহত নারীর নামপরিচয় জানা যায়নি। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ওসি রিতা আক্তার জানান, পেঁয়াজ কিনতে সেখানে শত শত মানুষ জড়ো হন। শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য পুলিশ পাঁচজন করে ক্রেতাকে মিলনায়তনের গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশের সুযোগ দিচ্ছিল। এর মধ্যে পেছন থেকে ধাক্কাধাক্কি শুরু হলে পুলিশ বাঁধা দেয়।

এ সময় লোড করা একটি শর্টগান থেকে অসাবধানতাবশত গুলি বের হয়ে যায়। ছররা গুলিতে দুইজন আহত হয়েছেন।

গত শুক্রবার সিলেট শহরতলীর বটেশ্বর বাইপাস এলাকায় র‌্যাব-৯ পরিচালিত একটি অভিযানে এক ট্রাক পেঁয়াজ উদ্ধার করা হয়। পেঁয়াজগুলো ভারত থেকে সিলেটের তামাবিল বর্ডার হয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এ সময় আমদানির কাগজ দেখাতে না পারায় ট্রাক ও পেঁয়াজ জব্দসহ দুইজনকে আটক করা হয়।

র‌্যাব-৯ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. মনিরুজ্জামান জানান, ৭ হাজার ২শত কেজি পেঁয়াজ বাংলাদেশে নিয়ে আসে চোরাকারবারিরা। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় সাড়ে নয় লাখ টাকা। পরে পেঁয়াজগুলো প্রথমে নিলামে ওঠানোর কথা থাকলেও পরবর্তীতে টিসিবির মাধ্যমে খোলাবাজারে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত হয়।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে নগরের কবি নজরুল মিলনায়তন এলাকা, কিন ব্রিজের মোড় ও বঙ্গবীর রোডের মার্কাস পয়েন্টে তিনটি ট্রাকের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হয়।

নির্ধারিত সময়ের অনেক আগে থেকে লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় পেঁয়াজ বিক্রির ওইসব পয়েন্টগুলো।

টিসিবি সিলেটের ইনচার্জ মো. ইসমাইল মজুমদার বলেন, সকাল থেকেই আমরা খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছি। আমাদের ডিলার সরকার নির্ধারিত মূল্যে নগরের তিনটি পয়েন্টে ট্রাকে করে পেঁয়াজ বিক্রি করেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.