শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৪:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
সেন্টমা‌র্টিন দ্বীপ নি‌য়ে বাকযুদ্ধ – মেজর না‌সিরু‌দ্দিন(অব) পিএইচ‌ডি রা‌সেল ভাইপার সা‌পের কাম‌ড়ে আক্রান্ত কৃষক এখ‌নো সুস্থ  রাসেলস ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের এক ছাগল কিনেই বেরিয়ে এলো মতিউর-লাকী দম্পতির থলের বেড়াল ভারতকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া টাইগাররা প্রধানমন্ত্রী দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লী পৌঁছেছেন মোটরবাইক ও ইজিবাইকের কার‌ণে সা‌দে‌শে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়‌ছে- সেতুমন্ত্রী ওবাইদুল কা‌দের  ওমা‌নে খুল‌ছে বাংলা‌দে‌শের তৃতীয় বৃহত্তম শ্রমবাজার এলাকাজুড়ে আতঙ্ক, মানিকগঞ্জে লোকালয়ে ঢুকেছে রাসেল ভাইপার উত্তর পুর্বাঞ্চলীয় রা‌জ্যের স‌ঙ্গে অন‌্যান‌্য রাজ‌্যগু‌লোকে সংযুক্ত কর‌তে বাংলা‌দে‌শের উপর‌দি‌য়ে বিকল্প রেলপথ তৈ‌রি কর‌তে যা‌চ্ছে ভারত সরকার 
জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি প্রশ্নবিদ্ব | অভিযোগ ইশতিয়াক আহমেদ জয়ের

জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি প্রশ্নবিদ্ব | অভিযোগ ইশতিয়াক আহমেদ জয়ের

কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটিতে সভাপতি হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি ও সাধারণ সম্পাদক মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রক বলে অভিযোগ ওঠেছে। শুধু তাই নয়, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ছাত্রত্ব নেই বলেও অভিযোগ করেছেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি ইশতিয়াক আহমদ জয়। তিনি তার ফেসবুকে ওয়ালে একটি স্ট্যাটাসে এসব অভিযোগ তুলেন। ফেসবুকে স্ট্যাটাসে তিনি উল্লেখ করেন, নতুন সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনানের ছাত্রত্ব নেই। তাছাড়া ছাত্রলীগ করার জন্য যে বয়স দরকার তাও তাদের পেরিয়ে গেছে।

ওই ফেসবুক স্ট্যাটাসে সদ্য বিদায়ী সভাপতি ইশতিয়াক আহমদ জয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রতি বেশ কয়েকটি প্রশ্নও ছুঁড়ে দিয়েছেন। পাঠকদের জন্য সেই স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হলো- কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটি নিয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে আমাদের যুক্তিসঙ্গত কয়েকটি প্রশ্ন রয়েছে, এ প্রশ্নগুলোর সঠিক উত্তর জানার অধিকার নিশ্চয়ই আমাদের সকলের আছে!

১. কেন্দ্র থেকে ঘোষিত কমিটিতে যে দুজনকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে, তারা কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখন পড়াশোনা করছে? তাদের কি ছাত্রত্ব আছে?
আমাদের জানা মতে, এই দুজনের কারওই ছাত্রত্ব নাই। আর ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যাদের ছাত্রত্ব নাই তারা কেউই ছাত্রলীগের নেতা হতে পারবে না। নাকি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে স্বেচ্ছাচারী যেকোন সিদ্ধান্ত নিতে পারে?

২. কেন্দ্র থেকে ঘোষিত কমিটিতে যে দুজনকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে, তাদের বয়স নাই। বয়স না থাকা কাউকে কি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে স্বৈরাচারী আচরণে নেতা বানাতে পারে? সাদ্দাম হোসেনের ভোটার আইডি নং-২২১৫৬৪০০০০৩৫, মারুফ আদনানের ভোটার আইডি নং-১৯৯০২২২২৪০৩০০০০০৮।

৩. কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ যাকে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি করেছে তার বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের এক কর্মীকে গুলি করে হত্যাচেষ্টা মামলা রয়েছে। এরকম কোন আসামিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা বানাতে পারে কি? মামলা নম্বর-৩৯/১৪১২০১৭

৪. কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ যাকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেছে তার বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল চুরির সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণের অভিযোগ রয়েছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে জানতে চাই, এরকম অভিযুক্ত কাউকে কি ছাত্রলীগের নেতা বানাতে পারে?

৫. কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতাদের বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও তারা সম্মেলন করতে রাজি হয় নাই। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সম্মেলন করতে অনিচ্ছা ছিলো কেন?

অবশেষে একটা কথাই বলতে চাই, ছাত্রলীগ একটা আবেগের নাম, এই আবেগ নিয়ে স্বেচ্ছাচারী আচরণ করা বন্ধ করতে হবে। সংগঠনের মঙ্গলের জন্য পকেট কমিটি দেওয়া বন্ধ করতে হবে।

তবে ইশতিয়াক আহমদ জয়ের দাবি নাকচ করে দিয়ে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের নতুন সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, তিনি কক্সবাজার আইন কলেজের নিয়মিত একজন ছাত্র। তাছাড়া মোটরসাইকেল চুরির সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রকের যে অভিযোগ তার বিরুদ্ধে আনা হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

অন্যদিকে, নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তি সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) দুপুরে মুঠোফোনে চট্টগ্রাম প্রতিদিনকে বলেন, তিনি চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ইনভার্সিটিতে আইন বিভাগের নিয়মিত ছাত্র। তাছাড়া ওনার বিরুদ্ধে যে মামলার অভিযোগ আনা হয়েছে সেটি ষড়যন্ত্রমূলক বলেও দাবী করেন। তাছাড়া বয়সের বিষয়ে নতুন সভাপতি-সাধারণ বলেন, ২০১৯ সালের ২০ সেপ্টেম্বর যখন সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছিল, তখন পর্যন্ত যাদের বয়স ছিল তারা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসতে পারবে বলে কেন্দ্র থেকে বলা হয়েছিল। সে সুবাদে তারা নেতৃত্বে এসেছে বলেও দাবী করেন।

উল্লেখ্য, নতুন সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন বিদায়ী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক উপসম্পাদক ছিলেন।

( সুত্রঃ চট্রগ্রাম প্রতিদিন/ ৪ নভেম্বর ২০২০)

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions