বৃহস্পতি. সেপ্টে. ১৯, ২০১৯

ক্ষুধামুক্ত দেশ গড়তে সবাইকে একযোগে কাজ করতে একেএম মামুনুর রশীদরশীদ

রাঙ্গামাটি প্রতিবেদক © খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ ও ক্ষুধামুক্ত দেশ গড়তে হলে সকলে মিলে খাদ্য আরো বেশি উৎপাদনের জন্য এক সঙ্গে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ। তিনি বলেন, খাদ্য নিরাপদ ও সয়ংসম্পূন্ন রাখতে সংশ্লিষ্ট দপ্তর গুলো জোরালো ভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। যার যার অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালন করে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে হবে।
মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) কর্ম গড়ে ভবিষ্যও, কর্মই গড়বে ২০৩০ এ ক্ষুধামুক্ত বিশ্ব এই প্রতিপাদ্যে সামনে রেখে বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের এবং খাদ্য অধিদপ্তরের আয়োজন জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
রাঙ্গামাটি কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ পরিচালক পবন কুমার চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এস এম শফি কামাল, কৃষিবিদ তপন কুমার পাল, রাঙ্গামাটি জেলা খাদ্য কর্মকর্তা মোঃ সামসুল আলমসহ কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারী, কৃষক-কৃষানীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।
এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ মামুন আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্যে সয়ং সম্পুন্ন দেশ। আর আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি কৃষি। তাই বর্তমান সরকার কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে যেসব উদ্যোগ নিয়েছে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এতে করে কৃষির উৎকর্ষ সাধনের মাধ্যমেই গ্রামীণ জনগণের জীবনমান উন্নয়ন ও খাদ্য নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। আর ফসলের পাশাপাশি মাছ, হাঁস-মুরগি ও গবাদিপশুর উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে। দেশে ক্ষুধামুক্ত করতে হলে সকলে একযোগে কাজ করতে হবে। তাই দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য টেকসই কৃষি ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই বলে জানান তিনি।
এর আগে রাঙ্গামাটি পৌর সভার সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসন কার্যালয় প্রাজ্ঞনে এসে শেষ হয় ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.