কুতুপালং বাজারের ঔষুধ প্রশাসনের অভিযান! অবৈধ নাম সর্বস্ব ৫ দোকান সিলগালা

SIMANTO SIMANTO

BANGLA

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২২

 

নুর মোহাম্মদ সিকদার:

রোহিঙ্গা অধ্যুষিত উখিয়ার ব্যস্থতম স্টেশন কুতুপালং ও বালুখালী বাজারে অবৈধ ঔষুধের দোকানে অভিযান চালিয়েছে কক্সবাজার জেলা ঔষুধ প্রশাসন।

বুধবার(৩০ নভেম্বর ২০২২ইং) দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কক্সবাজার জেলা ঔষুধ প্রশাসনের তত্বাবধায়ক রোমেল মল্লিকের নেতৃত্বে প্রায় শতাধিক ঔষুধের দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মেয়াদ উত্তীর্ণ ভেজাল ঔষধ মজুদ রাখা, নিম্ন মানের ঔষুধ বিক্রয়সহ ঔষধ প্রশানের ছাড়পত্র ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় আবছার হেলালীর মালিকাধীন আবছার মেডিকেল হল, সিরাজুল কাদেরের সমিহা-ফাতেমা ফার্মেসি, মোজাম্মেল হকের ফিরোজা মেডিকেল হল, মোস্তফা কামালের আব্দুল্লাহ মেডিকেল হল, আলী আজগরের সেবা মেডিকেল হল সিলগালা করা হয়। এ সময় বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদনহীন মিয়ানমার ও ভারতের বেশকিছু অবৈধ ও মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক ঔষধ জব্দ করা হয়। পাশাপাশি আল-করিম মেডিকেল হল ও মা-মেডিকেল হলকে ঔষুধ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয়।

অভিযানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির উখিয়া উপজেলা সভাপতি আলহাজ্ব ফরিদ আহাম্মদ, সহ-সভাপতি জহির আহম্মদ, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ কাশেম, কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির কুতুপালং শাখার সভাপতি ইকবাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবছার, অর্থ সম্পাদক রাসেল উদ্দিন সহ গণমাধ্যমকর্মী ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির কুতুপালং শাখার সভাপতি মোহাম্মদ ইকবাল বলেন, কুতুপালং বাজার ও বালুখালীতে অবৈধ বেশ কিছু ঔষুধের দোকান সিলগালা করা হয়েছে। কক্সবাজার জেলা ঔষুধ প্রশাসনের তত্বাবধায়ক রোমেল মল্লিক বলেছেন ব‌্যবসা করলে বৈধভাবে করেন আমি সর্বাত্বক সহযোগিতা করব। তবে অবৈধ ব‌্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ঔষুধ প্রশাসনের এ অভিযান অব‌্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির উখিয়া উপজেলা শাখার সহ- সভাপতি জহির আহাম্মদ এ প্রতিবেদককে বলেন, কক্সবাজার জেলা ঔষুধ প্রশাসনের তত্বাধায়ক রোমেল মল্লিকের আজকের এ ভ্রাম‌্যমান অভিযানকে বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির উখিয়া উপজেলার পক্ষ থেকে সাধুবাদ জানাই। মুলত আজকের অভিযান ছিল যে সব ঔষুধের দোকানে লাইসেন্স নাই মালিক বিহীন অবৈধ বেশ কিছু দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে আর কিছু দোকানে নিম্ন মানের ঔষুধ মজুদ রাখায় তা জব্ধ করা হয়।

অভিযানের বিষয়ে কক্সবাজার জেলা ঔষুধ প্রশাসনের তত্বাবধায়ক রোমেল মল্লিক বলেন, জিবন রক্ষাকারী ঔষুধে ভেজাল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ সহ অপচিকিৎসকদের বিরুদ্ধে আমাদের এই অভিযান। আজকের অভিযানে কুতুপালং এর ৫টি অবৈধ ঔষুধের দোকানকে সিলগালা করা হয়েছে। এই অভিযান চলমান থাকবেই বলে জানান তিনি।