কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীর গুলিতে হেডমাঝিসহ দু’জন নিহত

SIMANTO SIMANTO

BANGLA

প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০২২

 

নিজস্ব প্রতিনিধি ;
কক্সবাজারের উখিয়ার জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেডমাঝিসহ দু’জন নিহত হয়েছেন। এঘটনায় পুরো ক্যাম্প এলাকায় চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। ক্যাম্পে নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা হত্যাকান্ডে জড়িত ধরতে অভিযান পরিচালনা করছেন।নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য উখিয়া থানায় নিয়ে আসা হয়।
নিহতরা হলেন উখিয়ার জামতলী ১৫নাম্বার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি -ব্লকের বাসিন্দা আব্দুর রহিমের ছেলে হেড মাঝি আবু তালেব(৪০)ও একই ক্যাম্পে ইমাম হোসেনের ছেলে সৈয়দ হোসেন(৩৫)।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উখিয়ার জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প -১৫এর সি -৯ ব্লকের দুগর্ম পাহাড় সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এপিবিএন -৮ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( মিডিয়া) কামরান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, একদল সন্ত্রাসী উখিয়ার জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৫ এর সি-৯ ব্লকের সমতল হতে অনুমান ১৫০ ফিট উপরে দুর্গম পাহাড়ের ঢালে জনৈক আছিয়া বেগম এর শেড নং-১০১০ এর পাশে সি ব্লকের হেড মাঝি আবু তালেব এবং সি/৯ সাব ব্লকের মাঝি সৈয়দ হোসেন কে গুলি করে পালিয়ে যায়। এসময় পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় দুইজনকে উদ্ধার করে জামতলী এমএসএফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সৈয়দ হোসেন কে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। পরবর্তীতে আবু তালেবের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য উখিয়ার কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। পরবর্তীতে কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে পৌছালে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ও মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় রোহিঙ্গা মারফত জানা যায় পূর্বশত্রুতার জেরে ৮-১০ জন দুষ্কৃতকারী পূর্বপরিকল্পিতভাবে সৈয়দ হোসেন ও আবু তালেবকে গুলি করে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এপিবিএন ৮ এর কর্মকর্তা বলেন, ক্যাম্পে ব্লক রেইড এবং অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। উখিয়া থানায় মামলা রুজুর প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।