মঙ্গলবার, ২৫ Jun ২০২৪, ০১:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
নরসিংদীতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত উল্লাপাড়ায় মাইক্রোবাস-অটোভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে অটোভ্যান চালক নি’হ’ত। নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘ’র্ষ, আহত ৪ ঘুমধুমে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৪ সেন্টমা‌র্টিন দ্বীপ নি‌য়ে বাকযুদ্ধ – মেজর না‌সিরু‌দ্দিন(অব) পিএইচ‌ডি রা‌সেল ভাইপার সা‌পের কাম‌ড়ে আক্রান্ত কৃষক এখ‌নো সুস্থ  রাসেলস ভাইপার নিয়ে আতঙ্ক না ছড়িয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের এক ছাগল কিনেই বেরিয়ে এলো মতিউর-লাকী দম্পতির থলের বেড়াল ভারতকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া টাইগাররা
উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বদলে যাচ্ছে কক্সবাজার

উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বদলে যাচ্ছে কক্সবাজার

সীমান্তবাংলাঃ দীর্গদিনের আকাংখিত কক্সবাজারের শহরের প্রধান সড়কের নির্মাণ কাজ অবশেষে শুরু হয়েছে । এই সড়কের কাজ শেষ হলে বদলে যাবে কক্সবাজার শহরের চিত্র, বৃদ্বি পাবে সৌন্দর্য্য।
শহরের হলিডে মোড় থেকে হাশেমিয়া মাদরাসা পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ের নির্মাণ কাজ প্রধানমন্ত্রী চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমদ।
তিনি বলেন, কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কটি সবচেয়ে পুরাতন ও ব্যস্ততম সড়ক। এই সড়ক দিয়ে কক্সবাজারবাসী ও দেশের নানাপ্রান্ত থেকে আসা পর্যটকরা চলাচল করে থাকেন। এ জন্য সড়কটি নির্মাণ কাজ ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সড়কটি নির্মাণকাল ৩ বছর। কিন্তু কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ দেড় বছরের মধ্যে টেকসই একটি সড়ক মানুষকে উপহার দিতে চায়।
কউক  চেয়ারম্য্যন  (অব.) ফোরকান আহমদ বলেন, একটি সুখবর হল শহরের হলিডের মোড় থেকে হাশেমিয়া মাদরাসা পর্যন্ত প্রধান সড়কের প্রথম পর্যায়ের কাজ ১ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর চূড়ান্ত অনুমোদন হয়েছে।
বাকিটা হাশেমিয়া মাদরাসা থেকে বাস টার্মিনাল পর্যন্ত দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজে কিছু প্রশ্ন রয়েছে। এগুলোর উত্তর দেয়ার পর ওই দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজও শুরু হবে অতি শিগগিরই। এখন যে প্রথম পর্যায়ের কাজ অনুমোদন হয়েছে সেটির কার্যাদেশ দেয়ার পরপরই শহরের প্রধান সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। তিনি বলেন, এতদিন কিছু প্রক্রিয়া বাকি ছিল। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে মন্ত্রণালয়ে হয়ে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর কাজ শুরু হলো।
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আরো বলেন, কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কের নির্মাণ কাজের জন্য দুটি কোম্পানিকে ভাগ করে দেয়া হয়েছে। যাতে দ্রুত কাজ শেষ করা যায়। একটা হল এটার কোয়ালিটি আরেকটা হল সময়। এই দুইটা জিনিসকে মাথায় রেখে এই সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু হচ্ছে।
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ জানায়, এই সড়কটি প্রশস্তকরণ ও সংস্কারের জন্য তিন বছর আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি প্রকল্প জমা দেয়া হয়। কিন্তু প্রকল্পটির ব্যয় বেশি হওয়ার কারণে এতদিন এর অনুমোদন হয়নি।
পরে ২০১৯ সালের ১৬ জুলাই একনেক সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়। শহরের ৫ দশমিক ২ কিলোমিটার অংশে হবে এই সংস্কার ও প্রশস্তকরণের কাজ। হলিডে মোড় থেকে বাস টার্মিনাল পর্যন্ত প্রশস্ত করা হবে এই সড়কটি। সড়কের প্রশস্তকরণের পাশাপাশি দুইপাশে পথচারীদের চলাচলের জন্য ফুটপাত, ফুটওভার ব্রিজ, ড্রেন, ব্রিজ-কালভার্ট, সাইকেলওয়ে নির্মাণ করা হবে। এছাড়া সড়কের মাঝখানে সবুজায়ন, দুইপাশে সড়ক বাতি ও সিসি ক্যামেরা এবং ওয়াইফাই সংযোগ স্থাপন করা হবে।
সরেজমিনে গতকাল দেখাগেছে প্রধান সড়কে মাপঝোপের কাজ করছেন উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কর্মীরা।
উল্লেখ্য, কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কটি সড়ক ও জনপদ বিভাগের হলেও এই সড়কটি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কউক) কাছে হস্তান্তর করেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রাণালয়। জানা গেছে ২৯৮ কোটি ১৪ লাখ ৮৪ হাজার টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত হবে এই প্রকল্পটি।

( সুত্রঃ দৈনিক ইনকিলাব/ ২০ অক্টোবর ২০২০)

পোষ্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© কপিরাইট ২০১০ - ২০২৪ সীমান্ত বাংলা >> এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ

Design & Developed by Ecare Solutions