আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে কৃষি জমি দখলে নেওয়ার চেষ্টা

SIMANTO SIMANTO

BANGLA

প্রকাশিত: জুলাই ১৫, ২০২২

 

টেকনাফ প্রতিনিধি

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ ৭নং ওয়ার্ড হাজী পাড়া গ্ৰামের মাওলানা মোহাম্মদ নোমান (৪২) এর পিতা মৌলভী শব্বির আহমদ ওয়ারিশ সুত্র প্রাপ্ত এবং ক্রয়কৃত কৃষি জমি আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দখলের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে।

স্থানীয় আব্দুল জব্বার ও আব্দুশ শুক্কুর জানান, স্থানীয় মৃত ফজল আহমদের দুই ছেলে,কামরুলহাসান,
মুদ্দাসীর, ভূমিদস্যু মাছন সহ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাওলানা নোমান এর পিতা মাওলানা শব্বির আহমদদের ৮৩ শতক সম্পত্তি কৃষি জমি
জোর জবরদস্তি করে শাহপরীরদ্বীপের এক দালালের সহযোগিতায় দখল করার চেষ্টা করছে।মাওলানা শব্বির আহমদ গং এই ৮৩ শতক সম্পত্তি প্রায় ৫০ বৎছর ধরে ভোগ দখল করে আসছে।

তারা আরো জানান,সম্প্রতি মাওলানা শব্বির আহমেদের পিতা অসুস্থততার কারনে পুত্র মাওলানা মোহাম্মদ নোমান ওই সম্পত্তি নিয়ে ষাস করে আচ্চে অনেক বৎছর ধরে হঠাৎ করে শাহপরীরদ্বীপ বাজার পাড়ার মৃত ফজল আহমদের ওয়ারিশের সাথে বিরোধ চলছে তাই ৮৩ শতকের ভোগদখলের মালিক মাওলানা মোহাম্মদ নোমান ও পিতা কক্সবাজার জেলা আদালতে মামলা করলে মৃত ফজল আহমেদের চার পুত্রের বিরুদ্ধে আদালত ১৪৪ ধারা জারী করে এবং উক্ত জমিতে না যাওয়ার জন্য বলেন।
সেই মোতাবেক স্থানীয় থানার পুলিশ কামরুল হাছান গংদের উক্ত জমিতে কোনো ধরণের কাজ না করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু পরক্ষণে বিবাদী নিজেরা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে জোর পূর্বক কাজ করার চেষ্টা করতেছে।

ভুক্তভোগী মাওলানা মোহাম্মদ নোমান জানান,
প্রায় ৫০ বছর পূর্বে সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ মৌজার হাজী পাড়া গ্ৰামের আমার আব্বা মাওলানা শব্বির আহমদ এই ৮৩ শতক জমি ভোগদখল করে আসছে।
বিবাদীরা দীর্ঘদিন ধরে আমার পিতার এ সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ শুরু করে আসছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, মৃত ফজল আহমদের দুই পুত্র ও ভূমিদস্যু মাছন
সহ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক আমার এই ৮৩ শতক সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করছে। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিক বৈঠক করার পরও কোনো সুরাহা মানছে না। তিনি তার সম্পত্তির কাছে গেলে তারা মাওলানা নোমান কে প্রাণে হত্যারও হুমকি দিচ্ছেন। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, দলিল থাকার পর ও তিনি হয়রানি সিকার হচ্চেন তিনি প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু সমাধান দাবী করেন।

শাহপরীরদ্বীপ পুলিশ ফাঁড়ি এসআই মোঃ নুরে আলম বলেন, আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করার কোনো সুযোগ নেই। তদন্ত চলছে। বিবাদীপক্ষকে নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে বলা হয়েছে। উক্ত জমিতে গিয়ে মারামারি হানাহানি না করার নির্দেশ দিয়েছেন। ভঙ্গ করলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।