বৃহস্পতি. জুলাই ১৮, ২০১৯

আট বছর বয়সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

সীমান্ত বাংলা > বেলজিয়ামের আট বছর বয়সি এক বালক মাত্র দেড় বছরেই স্কুলের পড়াশোনা শেষ করেছে, যেটি শেষ করতে অন্যদের ছয় বছর সময় লাগে। এখন দুই মাসের ছুটি শেষে সে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবে।

তার বাবা একজন বেলজিয়ান আর মা নেদারল্যান্ডসের নাগরিক। তারা জানিয়েছেন, বুদ্ধিমত্তার পরীক্ষায় লরেন্ট সিমন্সের নম্বর উঠেছে ১৪৫।

বেলজিয়ামের আরটিবিএফ রেডিওকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে লরেন্ট বলেছে, তার প্রিয় বিষয় গণিত, কারণ এটি বিশাল একটি বিষয়। সেখানে পরিসংখ্যান আছে, জ্যামিতি আছে আর বীজগণিত। তার বাবা জানিয়েছেন, ছোটবেলা থেকেই লরেন্ট অন্য শিশুদের সঙ্গে মিশতে পারত না বা খেলতে পারত না। খেলনার প্রতিও তার কোনো আগ্রহ ছিল না।

লরেন্ট জানিয়েছে, পড়াশোনা শেষ করে সে একজন সার্জন এবং নভোচারী হওয়ার কথা ভেবেছিল। কিন্তু এখন সে বরং কম্পিউটার নিয়েই কাজ করতে চায়। তবে তার বাবা বলেছেন, ‘যদি সে আগামীকাল আবার কাঠমিস্ত্রি হতে চায়, সেটাও আমাদের জন্য কোনো সমস্যা নয়। তার যা করতে ভালো লাগবে, তাতেই আমরা খুশি।’ সূত্র : বিবি

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.